রাতে দেরি করে খেলে যেসব ভয়ঙ্কর রোগ হতে পারে!

ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ, ডিনার, সবেরই একটা নির্দিষ্ট করে সময় রয়েছে। কিন্তু আজকের এই ব্যস্ততার দিনে কতজনই বা আর একেবারে ঘড়ি ধরে খাবার খায় বলুন।

বেশিরভাগ সময়েই নির্দিষ্ট সময়ের থেকে বেশ খানিকটা দেরিতেই খাওয়া হয়। যেমন ধরুন না, যিনি অফিস থেকে রাত সাড়ে এগারোটা কিংবা তারও পরে বাড়ি ফেরেন, তার পক্ষে কীভাবে সন্ধের ৭টার আগে ডিনার শেষ করা সম্ভব?

অথচ, ডিনারের সঠিক সময় সন্ধে ৭টা। তাই অবধারিত দেরি। আমরা তো কাজের দোহাই দিয়ে দেরিতে খাওয়া দাওয়া করছি। কিন্তু জানেন কি, এতে আমাদের শরীরের কি কি এবং কত ক্ষতি হচ্ছে?

সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, রাতে দেরি করে খাওয়ার ফলে রক্তচাপ বেড়ে যায়। আর এর ফলে প্রায় ৭০০ জনেরও বেশি মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তাই এখনই সাবধান হতে রাতে খাওয়ার নিয়ম মেনে চলুন-

কেন আগে খাবেন?

১) দেরি করে খাওয়ার ফলে স্ট্রোকস এবং হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

২) প্রাপ্তবয়স্কদের কখনওই সন্ধে ৭টার পর খাবার খাওয়া উচিত নয়।

৩) ডিনার করার ২ ঘণ্টার মধ্যে শুয়ে পড়বেন না। হাঁটাচলা করুন। এতে খাবার হজম সঠিক পদ্ধতিতে হবে।

৪) তাড়াতাড়ি খেলে শরীর সেই খাবার হজম হওয়ার জন্য উপযুক্ত সময় পায়।

সন্ধে ৭টার পর ডিনার করলে কী হবে?

১) রক্তচাপ বাড়বে।

২) স্ট্রেস হরমোনের পরিমান বাড়বে।

৩) মোটা হয়ে যাওয়া, হৃদরোগ প্রভৃতি সমস্যার সম্ভাবনা বাড়বে।