Breaking News
Home > ধর্ম ও জীবন > কার কার সাথে কুরবানী দেওয়া যাবে না ও যা করলে আপনার কুরবানী কবুল হবে না – জেনে নেয়া অতি জরুরি।

কার কার সাথে কুরবানী দেওয়া যাবে না ও যা করলে আপনার কুরবানী কবুল হবে না – জেনে নেয়া অতি জরুরি।

ইসলামের সকলের ইবাদতের মতো ঈদও আল্লাহ তাআলার পক্ষ হতে নির্দেশিত। ঈদুল আযহা সম্পর্কে আবদুল্লাহ ইবনে আমর রা. থেকে বর্ণিত এক হাদীসে আছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘আমাকে কুরবানীর দিবসে ঈদ (উদযাপনের) আদেশ করা হয়েছে। আল্লাহ তা এ উম্মতের জন্য নির্ধারণ করেছেন।’ এক ব্যক্তি আরজ করলেন, ‘ইয়া রাসূলাল্লাহ! যদি আমার কাছে শুধু একটি ‘মানীহা’ থাকে (অর্থাৎ যা আমাকে শুধু দুধ পানের জন্য দেওয়া হয়েছে) আমি কি তা কুরবানী করতে পারি? নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, ‘না।

তবে তুমি চুল, নখ ও মোঁচ কাটবে এবং নাভীর নিচের পশম পরিষ্কার করবে। এটাই আল্লাহর দরবারে তোমার পূর্ণ কুরবানী বলে গণ্য হবে।-সুনানে আবু দাউদ ২/৩৮৫; সুনানে নাসায়ী ২/১৭৯ ‘মানীহা’ হচ্ছে, যে পশু কাউকে দুধ পান করার জন্য বা অন্য কোনো কাজে ব্যবহারের জন্য দেওয়া হয়। কুরবানীর পশু আনাস ইবনে মালিক রা. বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দু’টি সাদা-কালো বর্ণের (বড় শিং বিশিষ্ট) নর দুম্বা কুরবানী করেছেন।

আমি দেখেছি, তিনি দুম্বা দু’টির গর্দানে পা রেখে বিসমিল্লাহি ওয়াল্লাহু আকবার বললেন। অতঃপর নিজ হাতে যবেহ করলেন।-সহীহ বুখারী ২/৮৩৪; সহীহ মুসলিম ২/১৫৫-১৫৬ হযরত জাবির রা. থেকে বর্ণিত একটি দীর্ঘ হাদীসে আছে, ‘অতঃপর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কুরবানীর স্থানে এলেন এবং নিজ হাতে তেষট্টিটি উট নাহর করলেন।

-সহীহ মুসলিম ১/৩৯z৪; সুনানে আবু দাউদ ১/২৬২ উম্মুল মু’মিনীন আয়েশা রা. থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর স্ত্রীদের পক্ষ হতে গরু দ্বারা কুরবানী করেছেন।-সহীহ বুখারী ২/৮৩৪; ১/২৩১ গরু দ্বারা কুরবানীর বিষয়টি হযরত জাবির রা.-এর সূত্রেও বর্ণিত হয়েছে। দেখুন : সহীহ মুসলিম ১/৪২৪ গরু ও উটে সাত শরীক হতে পারে জাবির রা. বলেন, আমরা হজ্বের ইহরাম বেঁধে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর সাথে বের হলাম।

তিনি আমাদেরকে আদেশ করলেন যেন আমরা প্রতিটি উট ও গরুতে সাতজন করে শরীক হয়ে কুরবানী করি।-সহীহ মুসলিম ১/৪২৪ অন্য বর্ণনায় আছে, নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, (একটি) গরু সাত জনের পক্ষ হতে এবং (একটি) উট সাত জনের পক্ষ হতে (কুরবানী করা যায়)।-সুনানে আবু দাউদ ২/৩৮৮ কুরবানীর পশুর বয়স জাবির রা. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, তোমরা (কুরবানীতে) ‘মুছিন্না’ ছাড়া যবেহ করবে না।

তবে সংকটের অবস্থায় ছ’মাস বয়সী ভেড়া-দুম্বা যবেহ করতে পারবে।’-সহীহ মুসলিম ২/১৫৫ কুরবানীর উট অন্তত পাঁচ বছর বয়সী হতে হবে।

Check Also

dddd-3

মূসা (আ:) এর লাঠির আঘাতে তৈরী হওয়া সেই ঝর্ণা। দেখুন ভিডিও

মূসা (আ:) এর লাঠির আঘাতে তৈরী হওয়া সেই ঝর্ণা। দেখুন ভিডিও মূসা (আ:) এর লাঠির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *