Breaking News
Home > রেসিপি > গোলাব জাম

গোলাব জাম

আগেই বলে নিচ্ছি, এই মিস্টিটা নিজে বানিয়ে খাবার পর আপনি আর দোকানের কেনা মিস্টি খেতে চাইবেন না। গ্যারান্টি !
উপকরণ
  • ফুল ক্রিম মিল্ক পাউডার – ৩/৪ কাপ (পৌনে এক কাপ ) আমি ডানো নিয়েছি
  • ময়দা – ১/২ কাপ
  • বেকিং পাউডার – ১ চা চামচ
  • ডিম – ১ টি
  • ঘি – ২ চা চামচ
  • চিনি – ২ চা চামচ
  • পানি -২ চা চামচ
  • সিরার জন্য – ২ কাপ চিনি + ২ ১/২ কাপ পানি + ১ টা এলাচ + ২ চা চামচ গোলাপ জল
  • ভাজার জন্য – তেল পরিমান মতো ( ৩ কাপ হলে ভাল হয় )

প্রণালী

– একটা বাটিতে মিল্ক পাউডারময়দা , বেকিং পাউডার এক সঙ্গে ভাল করে মিশিয়ে নিন।

– অন্য বাটিতে ডিমঘিপানিচিনি ভাল করে ফেটিয়ে নিন  ডিমের মিশ্রন অল্প অল্প করে দিয়ে ময়দা আর গুডা দুধ মেখে মন্ড করে নিন 

 – একটু নরম মন্ড হবে। ভয় পাবার কিছু নেই। ১০ মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে দিন। হাতে সামান্য ঘি মেখে নি।

 – এবার মাখা মন্ড থেকে হাতে করে ছোট ছোট বল বানিয়ে নিন। এগুলো ফুলে দ্বিগুনের  বড় হয়ে যাবে। আমি ১৮ টা মিস্টি বানিয়েছি।  আপনারা নিজের ইচ্ছা মত সাইজে বানাতে পারেন। এবার এগুলো অল্প আচে ভাজতে হবে।

বেশি করে তেল নিবেন। তেল নস্ট হবে না কাজেই চিন্তার কিছু নাই। বড় কড়াই বা প্যান নিবেন যেন মিস্টি গুলো নিজে নিজে নড়াচড়ার জন্য যথেস্ট জায়গা পায়।

– আচ কম রাখবেন এবং মনোযোগ দিয়ে ভাজার কাজটা করবেন। সোনালী রঙ এর হয়ে আসলে তুলে রাখবেন। একটা টুথপিক দিয়ে মিস্টি গুলো ফুটো করে দিন 

– সিরা আগেই ফুটিয়ে নিবেন। (গোলাপ জল বাদে )চিনি গলে মিশে গেলেই হয়ে যাবে। বেশি ফুটানোর দরকার নেই।  খুব গরম ( ফুটন্তসিরায় মিস্টি দিবেন না। সিরা ফুটিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে  মিনিট রেখে দিন  এরপর মিস্টি গুলো সিরায় দিয়ে ঢেকে দিন।

আধা ঘন্টা পরেই মিস্টিগুলো সিরায় ভিজে রসে টইটম্বুর হয়ে যাবে। ঠান্ডা হলে গোলাপ জল দিন।

11057326_409034095971892_494374753568369209_nহাড়িতে রাখা মিস্টি ছবি দেবার জন্য দুঃখিত। আমি আসলে দেখাতে চেয়েছি এক রেসেপি উপকরণ দিয়ে এতগুলো মিস্টি তৈরি করা যায়। ১৮ টা বেশ বড় বড় সাইজের মিস্টি হবে। ইচ্ছা করলে ছোট ছোট করে জরদার জন্য মিস্টি বানিয়ে নিতে পারেন।

নিজে বানান , পরিবারের সবাইকে নিয়ে উপভোগ করুন দারুন মজার গোলাব জাম।

টিপস
আশা করি যারা প্রথম মিস্টি বানাবেন / যারা এর আগে মিস্টি বানিয়ে হতাশ হয়েছেন তাদের জন্য। কাপের মাপ বলতে মেজরমেন্ট কাপ বুঝিয়েছি। সব মাপ মত নিলে ভুল হবার কথা নয়-
  • মাখা মন্ড বেশ নরম হবে ( রুটির গোলার মত নয় ) আরো নরম । যেমন হাতে লেগে যাবে।
  • ১০ মি ফ্রিযে রাখার পর আয়ত্তে এসে যাবে ।একটা একটা করে বল তেলে দিবেন না । সব একসাথে বানিয়ে তারপর তেলে ভাজা শুরু করবেন।
  • খুব কম আচে ভাজবেন । বেশি আচে ভাজলে মিস্টির উপরে পুড়ে যাবে কিন্তু ভেতরে কাচা / শক্ত হয়ে যাবে।
  • ফুটন্ত সিরায় ভাজা মিস্টির বল দিলে মিস্টির গা কুচকে যায় । এই জন্য ই ৫ মি পর দিতে বলেছি।
  • বড় প্যানে বেশি তেল দিয়ে ভাজবেন মিস্টি তেলে দেবার কিছু সময় পরেই অনেক বড় হয়ে যায়।
  • খেয়াল রাখবেন তখন যেন গায়ে গায়ে লেগে না যায়।
  • বল গুলো যেন সব দিকে সমান ভাবে ভাজা হয় সেটা খেয়াল রাখবেন ।

Check Also

amitumi_butter-naan-grlic-chicken

সুস্বাদু বাটার চিকেন এবং গার্লিক নান এর রেসিপি

রুটি দিয়ে খান মুরগির মজাদার পদ। বাটার চিকেন এবং গার্লিক নান এর কথা শুনলে সবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *