Breaking News
Home > অবাক বিশ্ব > স্ত্রীর মার খেয়ে ৪৮ বছর বনবাসে!

স্ত্রীর মার খেয়ে ৪৮ বছর বনবাসে!

স্ত্রীর ওপর রাগ করে ৪৮ বছর ধরে বনে বাস করছেন এক ব্যাক্তি। এটা কোনো ঠাকুরমার ঝুলির গল্প নয়। একেবারে বাস্তব। ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের ৭১ বছরের বৃদ্ধ কেন্নাচাপ্পা গৌড়া ঘর ছেড়েছিলেন সেই ১৯৬৮ সালে। এরপর থেকে একা একা তাঁর বাড়ি থেকে প্রায় ১৩০ কিলোমিটার দূরে সুলিয়া এলাকার মারগাঞ্জ অভয়ারণ্যে বাস করছেন তিনি।

সম্প্রতি ভারতের একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুসন্ধানে উঠে আসে তাঁর বনবাস জীবন কাহিনী। এরপর তাঁকে নিয়ে খবর প্রকাশ করে দেশটির অনেক সংবাদমাধ্যমই।

ভারতের সংবাদমাধ্যম জিনিউজ জানিয়েছে, ২২ বছর বয়সে ষাটষট্টি সালে বিয়ে করেছিলেন কেন্নাচাপ্পা। স্ত্রী উমা ছিলেন রাগী প্রকৃতির। একদিন কথা কাটাকাটির কারণে স্ত্রী তাঁকে পরিবারের সদস্যদের সামনে গায়ে হাত তোলেন। সেদিনই রাগে-ক্ষোভে বনবাসী হন কেন্নাচাপ্পা। বাড়ি ছাড়ার সময়ে প্রতিজ্ঞা করেন, যত দিন পর্যন্ত উমা না মারা যাবেন তত দিন তিনি বাড়ি ফিরবেন না। এরপর থেকে বনে বনেই কাটছে ৭১ বছর বয়েসী এই বৃদ্ধের জীবন।

এদিকে জিনিউজের অনুসন্ধানে জানা গেছে, যে নারীর জন্য ঘর ছেড়েছেন কেন্নাচাপ্পা সেই নারী অর্থাৎ তাঁর স্ত্রী এখনো জীবিত। কয়েক বছর আগে স্বামীর সন্ধান পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু স্বামীকে ফিরিয়ে আনতে যাননি এবং তাঁর একমাত্র ছেলেকেও বাবার কাছে যেতে দেননি উমা। তাঁর বিশ্বাস, স্রষ্টা কপালে যা লিখে রেখেছেন তাই হবে।

এদিকে টেলিভিশন চ্যানেল ইন্ডিয়া টাইমসকে কেন্নাচাপ্পা গৌড়া জানান, নারকেল পাতা দিয়ে বানানো একটি ছোট্ট ঘরে থাকেন তিনি। জঙ্গলে কৃষিকাজ করে উৎপন্ন আলু দিয়ে বানানো খাবার খেয়েই কাটে তাঁর দিন। এভাবেই এত বছর বেঁচে আছেন তিনি।

রূপচর্চা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক যে কোন তথ্যের জন্য আমাদের পেজ স্বাস্থ্য সেবা ।। Health Tips এ লাইক দিয়ে এক্টিভ থাকুন।

Check Also

‘স্মার্ট’ রিকশা চালকের আয়ও বেশি।

ইস্ত্রি করা শার্টের সঙ্গে মিলিয়ে প্যান্ট, গলায় টাই, সানগ্লাসে ঢাকা চোখ, মাথায় ক্যাপ, হাতে ঘড়ি, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *