Breaking News
Home > ভিন্ন খবর > ভিডিও দেখুনঃ মেয়েদের যৌনাঙ্গের চুল কাটার ৮টি সহজ উপায়!!!

ভিডিও দেখুনঃ মেয়েদের যৌনাঙ্গের চুল কাটার ৮টি সহজ উপায়!!!

মেয়েদের শরীরে বা মুখে চুল থাকবেনা এটা একটা স্বাভাবিক বিষয়। লোমশ যৌনাঙ্গ বা মুখমণ্ডল অনেক ছেলেরই তাই অপছন্দ। তারা চায় তাদের শয্যাসঙ্গিনী হবে সকল ধরনের চুল থেকে মুক্ত এবং মসৃণ ত্বকের অধিকারী।

তাইতো আজকালকার মেয়েরা চেষ্টা করে সবসময়ই ক্লিন আর নরম ত্বকের অধিকারিণী হতে। খারাপ.কম মেয়েদের এই উটকো ঝামেলার কথা চিন্তা করে নিয়ে এসেছে যৌনাঙ্গ অপ্রয়োজনীয় লোম বা চুল থেকে পরিষ্কার রাখার ৮টি সহজ উপায়। চলুন দেখি উপায়গুলো কি কিঃ১। টুইজিং/প্লাকিংঃ টুইজিং বা প্লাকিং হল এমন একটি উপায় যার মাধ্যমে প্রতিটা চুল বা লোম একে একে তুলে আনতে হয়।

যেখানে করা উচিৎঃ মুখমণ্ডল বা যেখানে চুলের ঘনত্ব কম

স্থায়িত্বঃ ৩-৮ সপ্তাহ

২। শেভিংঃ রেজার বা ইলেকট্রিক রেজার ব্যবহার করে শেভিং করা যেতে পারে।

যেখানে করা উচিৎঃ শেভিং যেকোনো জায়গায় করা যেতে পারে

স্থায়িত্বঃ ১-৩ দিন

file (15)

file

৩ । ওয়াক্সিংঃ একজন কসমেটোলোজিসট গলিত মোম ত্বকের উপর ছড়িয়ে দিয়ে একটি কাপড় দিয়ে ঢেকে দেন। মোম শুকিয়ে গেলে কাপড় উঠিয়ে ফেলেন। সাথে উঠে আসে লোম বা চুল।

যেখানে করা উচিৎঃ যেকোনো জায়গায় করা যেতে পারে

স্থায়িত্বঃ ৩-৬ সপ্তাহ

৪। লেজার বা আলোক রশ্মিঃ একজন টেকনিসিয়ান উজ্জ্বল আলোকরশ্মি দিয়ে চুলের গোরা ধ্বংস করে দেন। এটা সবচেয়ে কার্যকর প্রক্রিয়া।

যেখানে করা উচিৎঃ যেকোনো জায়গায় করা যেতে পারে

স্থায়িত্বঃ সাধারণত ৬-১২ বার এই প্রক্রিয়া অবলম্বন করলেই চুলের কবল থেকে সম্পূর্ণরুপে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

। ইলেকট্রলাইসিসঃ একজন প্রশিক্ষনপ্রাপ্ত এক্সপার্ট একটি সুক্ষ নিডল প্রতিটি চুলের ফলিকলে ঢুকিয়ে কারেন্ট প্রবাহিত করে গোরা নষ্ট করে দেন।

 যেখানে করা উচিৎঃ অনেক দীর্ঘ এই প্রক্রিয়া কম চুল বিশিষ্ট এলাকায় করা ভালো। তাতে কম সময়েই কর্ম সম্পাদন হয়।

স্থায়িত্বঃ পুরোপুরি চুল না চলে যাওয়া পর্যন্ত ১-২ সপ্তাহ পর পরই ইলেকট্রলাইসিস করতে হয়।

ভিডিওটি এখানে ক্লিক করে দেখুন

Check Also

post1

হাতিরঝিলে উচ্চবিত্ত মাতাল তরুণীর কাণ্ড দেখুন! (ভিডিও)

হাতিরঝিলে উচ্চবিত্ত মাতাল তরুণীর কাণ্ড দেখুন! (ভিডিও) হাতিরঝিলে উচ্চবিত্ত মাতাল তরুণীর কাণ্ড দেখুন! (ভিডিও) হাতিরঝিলে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *