Breaking News
Home > ভিন্ন খবর > সহবাসের সময় ৭ টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়ে যায়।যার ফলে স্ত্রীরা অধিক সুখী হয়।দেখুন ভি ডিও।

সহবাসের সময় ৭ টি কথায় স্ত্রীরা অধিক উত্তেজিত হয়ে যায়।যার ফলে স্ত্রীরা অধিক সুখী হয়।দেখুন ভি ডিও।

প্রেমের সম্পর্ক হোক কিংবা দাম্পত্য সম্পর্ক, প্রশংসা শুনতে নারী ও পুরুষ উভয়ই ভালোবাসেন। যেমন ধরুন, নারীরা তাদের নিজের সঙ্গীর কাছ থেকে প্রশংসা শোনার জন্য ব্যাকুল হয়ে থাকেন। আর যখনই প্রশংসা পান তখন যেন খুশির শেষ থাকেনা। কিন্তু অনেক নারীরাই এই ভুলটি করে থাকেন, তা হল সঙ্গীর প্রশংশা খুব সহজে করেন না। শুধু নিজের প্রশংসা শুনলেই তো আর হবে না, মাঝে মাঝে সঙ্গীকেও তার কোন কিছুর জন্য প্রশংসা করুন। দেখুন সে কতো খুশি হয়। আর পুরুষেরা তাদের সম্পর্কে যে প্রশংসাগুলো শুনতে ভালোবাসেন তা হল……

“আই লাভ হাউ স্ট্রং ইউ আর”

এই ছোট্ট একটি কথা বলে আপনার সঙ্গীকে মুহূর্তেই খুশি করে দিতে পারেন। শক্তিশালী কর্মঠ পুরুষ সব নারীদেরই সপ্ন থাকে। তাই যদি আপনার সঙ্গী সত্যি এমনটা হয়ে থাকে এই কথাটি বলে তার প্রশংসা করুন।

“আই এম প্রাউড অফ ইউ”

সঙ্গীকে নিয়ে গর্ববোধ করতে সবাই চায়। পুরুষ সঙ্গীটি যদি হয়ে থাকে খুব কর্মঠ, সে যদি হয়ে থাকে কোন ব্যক্তিত্ববান পুরুষ যার জীবনে সে অনেক ভাল জিনিস অর্জন করেছেন, কিংবা হতে পারে প্রতিষ্ঠিত ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার বা কোন বড় ব্যবসায়ী, তাহলে তাকে নিয়ে অবশ্যই তার সামনে গর্ববোধ করুন।

‘তুমি আমার খুশি হওয়ার অন্য কারণ’

এই কথাটি একবার সঙ্গীকে বলেই দেখুন না সে কতটা খুশি হয়। আপনার সম্পর্ক প্রেমের কিংবা দাম্পত্যের হোক না কেন সঙ্গী নিশ্চয়ই আপনাকে খুশি রাখতে অনেক কিছু করেন, আপনি যে হাসিখুশি থাকেন সবসময় তা খেয়াল করেন তাহলে তার এতো কিছুর জন্য তাকে অবশ্যই প্রশংসা করুন।

‘তুমি অসাধারণ একজন সঙ্গী’

সবার সঙ্গী সবার কাছে কোন না কোন কারণে অসাধারণ। তাই সঙ্গীকে বলেই ফেলুন তার এমন কোন কাজের জন্য যে ‘তুমি এতো বেশি অসাধারণ কেন?’ বেশি করে প্রশংসা করুন। কারণ প্রশংসা এমন একটি বিষয় যা সম্পর্ককে আরও বেশি মজবুত করে।

‘তোমাকে অনেক ধন্যবাদ’

সঙ্গী আপনার জন্য যাই করুক না কেন কিংবা আপনাকে যখন যেভাবে যেই অবস্থায় রাখুক না কেন তাকে কখনো ধন্যবাদ জানাতে ভুলবেন না। অনেকেই ধন্যবাদ বলতে কিছুটা হলেও লজ্জা পান তাই মিষ্টি করে হাসি দিয়ে থাকেন। কিন্তু মিষ্টি করে হাসি তো দিবেনই সাথে ধন্যবাদও বলাটা জরুরি।

‘ইউ আর মাই হিরো’

নারীদের কাছে তাদের প্রেমিক কিংবা স্বামী কিন্তু অ্যাকশন যে কোন মুভির হিরোর মতোই। কিন্তু বাস্তবে সঙ্গীকে হিরো না ভাবাই ভাল কারণ মুভি আর বাস্তবতা কিন্তু একরকম নয়। কিন্তু তারপরেও সঙ্গী নিশ্চয়ই আপনার খুব খেয়াল রাখেন, কোন সমস্যা হলে সে আপনাকে সাহায্য করেন, আরও অনেক কিছুই যার জন্য আপনি সঙ্গীকে হিরো মনে করেন, আর তাকে ‘ইউ আর মাই হিরো’ বলতে ভুলবেন না।

এবং সবার শেষে, সঙ্গীকে সম্মান করতে কখনো ভুলে যাবেন না। যেহেতু সঙ্গীই আপনার এতোগুলো প্রশংসা শোনার ক্ষমতা রাখে তাহলে তো তাকে আপনার মন থেকে সম্মান করা উচিৎ। তাকে সম্মান করে ভালোবাসুন এবং প্রশংসাও করেন সম্মান দিয়ে। কারণ সম্পর্কে এই বিষয়গুলোর প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি।

বিঃ দ্রঃ প্রতিদিন প্রয়োজনীয় সকল স্বাস্থ্য টিপস আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে আমাদের পেজ স্বাস্থ্য সেবা ।। Health Tips এ লাইক দিন! 

Check Also

শারীরিক সম্পর্কে অভ্যস্ত নারীদের চেনার উপায় কী?

শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া কোনো নারীকে বাহ্যিকভঅবে চেনার তেমন কোনো উপায় নেই। তবে আমরা প্রায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *